1. admin@bashundharatribune.com : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  2. editor@bashundharatribune.com : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
শেরপুরের করোনা আক্রান্ত রোগীর জরুরী প্রয়োজনে সেবা দিতে প্রস্তুত এক ঝাঁক সাহসী তরুন । যার নাম করণ করা হয় ‘শেরপুর ইমার্জেন্সি অক্সিজেন ব্যাংক’ - Bashundhara Tribune
বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৫:২৫ পূর্বাহ্ন
আক্রান্ত

সুস্থ

মৃত্যু

  • জেলা সমূহের তথ্য
ন্যাশনাল কল সেন্টার ৩৩৩ | স্বাস্থ্য বাতায়ন ১৬২৬৩ | আইইডিসিআর ১০৬৫৫ | বিশেষজ্ঞ হেলথ লাইন ০৯৬১১৬৭৭৭৭৭ | সূত্র - আইইডিসিআর | স্পন্সর - একতা হোস্ট

শেরপুরের করোনা আক্রান্ত রোগীর জরুরী প্রয়োজনে সেবা দিতে প্রস্তুত এক ঝাঁক সাহসী তরুন । যার নাম করণ করা হয় ‘শেরপুর ইমার্জেন্সি অক্সিজেন ব্যাংক’

শেরপুর জেলা থেকে সংবাদকর্মী রাসেল হাসান ::-
  • প্রকাশিত : শনিবার, ২৪ জুলাই, ২০২১
  • ৬১ জন দেখেছেন

করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের বাড়িবাড়ি গিয়ে সেবা দিতে শেরপুরে প্রথম যাত্রা শুরু করেন এক ঝাঁক সাহসী তরুন। যার নাম করণ করা হয় ‘শেরপুর ইমার্জেন্সি অক্সিজেন ব্যাংক’। এটি একটি অরাজনৈতিক স্বেচ্ছোসেবী সামাজিক সংগঠন। যার কাজই হলো করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত অসহায় ও গরীব রোগিদের বিনামূল্যে সেবা দেওয়া। যারা বাড়িতে আইসোলেশনে আছেন এবং সেবা প্রয়োজন তাদেরই দেওয়া হচ্ছে এই সেবা। নির্দিষ্ট হটলাইন (০৯৬৩৮০১৫০৫০) নাম্বারে ফোন করলেই সেবা গ্রহিতার বাড়ি চলে যাচ্ছেন ‘শেরপুর ইমার্জেন্সি অক্সিজেন ব্যাংক’ এর সদস্যরা।

‘শেরপুর ইমার্জেন্সি অক্সিজেন ব্যাংক’ প্রথমে ২টি অক্সিজেন সিলিন্ডার নিয়ে কার্যক্রম শুরু করে। বর্তমানে সিলিন্ডার সংখ্যা ১৩টি, ৮০টি পালস অক্সিমিটার, ২০টি ফ্লো মিটার, ২টি অক্সিজেন কনসেন্ট্রেটর দিয়ে করোনা আক্রান্ত রোগীর জরুরী সেবা দিয়ে যাচ্ছে। শেরপুরের সর্বস্তরের লোকজনের কাছে ইতিমধ্যে জায়গা করে নিয়েছেন এই সংগঠনটি।

‘শেরপুর ইমার্জেন্সি অক্সিজেন ব্যাংক’ সূত্রে জানাযায়, ১৩ জুলাই থেকে ৪৭জন কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগী ও ১১জন নন-কোভিড রোগীকে অক্সিজেন সেবা দেয়া হয়েছে। এই পর্যন্ত ১৭জন আশংকাজনক রোগীকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে ও ৪ জনকে উন্নতর চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানোর ব্যাবস্থা করা হয়েছে এই সংগঠনের মাধ্যমে। শেরপুরের করোনা আক্রান্ত রোগীর জরুরী প্রয়োজনে সেবা দিতে প্রস্তুত রয়েছে ‘শেরপুর ইমার্জেন্সি অক্সিজেন ব্যাংক’ এর ৪০জন তরুন স্বেচ্ছাসেবক টিম। যারা ফোন পেলেই সেবা দিতে পৌছে যাবে আপনাদের বাড়ি।

‘শেরপুর ইমার্জেন্সি অক্সিজেন ব্যাংক’ সূত্রে আরো জানা যায়, এই কার্যক্রমের সার্বিক সহোযোগিতা করছে জেলা প্রশাসন, বিএমএ শেরপুর ও শেরপুর পৌরসভা ও বিত্তবানরা। হটলাইনে কল করলেই মিলছে পালস অক্সিমিটার, বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শে চিকিৎসা সেবা। ১০জন চিকিৎসক প্যানেল ২৪ঘন্টা হোম আইসোলেশনে থাকা রোগীদের প্রয়োজনে টেলিফোনে চিকিৎসা সেবা দিচ্ছেন। যদি কেউ দেশের এই ক্লান্তি লগ্নে এই মানব সেবাকে আরো ত্বরানিত করতে সহযোগিতা করতে পারেন (বিকাশ পারসোনাল) ০১৭৪৯৪৬৭০৭২ রকেট+নগদ ০১৭১১০১৮০৩৬ নাম্বারে।

এ সম্পর্কিত আরো সংবাদ

বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস

সর্বমোট

আক্রান্ত
সুস্থ
মৃত্যু
সূত্র: আইইডিসিআর

সর্বশেষ

আক্রান্ত
সুস্থ
মৃত্যু
স্পন্সর: একতা হোস্ট
কপিরাইট © ২০২১ বসুন্ধরা ট্রিবিউন এর সকল স্বত্ব সংরক্ষিত
Developed By Bongshai IT